বেহালা ১১ পল্লীতে এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। রবিবার সকাল বেলায়  এক ব্যক্তির রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করল বেহালা থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে, বছর ছেচল্লিশের মৃত ওই ব্য়ক্তির নাম গৌতম চক্রবর্তী। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান অবসাদে হাতের শিরা কেটে আত্মহত্যা করেছে। 

আরও পড়ুন, রিজেন্টপার্কের তরুণী খুনে হাড় হিম করা তথ্য, প্রেমিকের সম্বন্ধে কী জেনে ফেলেছিল প্রিয়াঙ্কা


স্থানীয় লোকদের বক্তব্য,  গৌতম চক্রবর্তীর বাবা-মা কেউ নেই। তাঁরা মারা গেছে কয়েক বছর আগে। তিনি একাই দিন-যাপন করছিলেন। কিন্তু লোকডাউন এর ফলে কাজ ঠিকমতো হচ্ছিল না। হাতে পয়সা কড়িও ছিল না। স্থানীয় ক্লাব কোনওরকম ভাবে তাঁকে সাহায্য করছিল। বেশ কয়েকদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। গত কাল রাত্রিবেলায় আশেপাশের লোকজন গোঙানির শব্দ পায় তাঁর ঘর থেকে। কিন্তু তারা কেউ বুঝতে পারেনি গৌতম বাবু  কি অবস্থায় রয়েছে। ঘটনা প্রকাশ্যে আসে রবিবার সকালে।

আরও পড়ুন, ফের অঘটন, দক্ষিণ চীন সাগরে তেলবাহী ট্যাঙ্কার জাহাজ থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ বাঙালি ইঞ্জিনিয়ার


রবিবার সকালবেলায় প্রতিবেশীরা যখন গৌতম বাবুকে ডাকতে যায়,তখন দেখে দরজা খুলছে না। ভিতর দিয়ে বন্ধ। বেহালা থানার পুলিশকে খবর দিলে, পুলিশ এসে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢোকে। তারপর ওই ব্য়াক্তির রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।  ইতিমধ্যেই তার দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেশীদের বক্তব্য, বেশ কয়েকদিন ধরেই আর্থিক অনটনের জন্য মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন গৌতম বাবু। তার জেরে এই ঘটনা ঘটেছে কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।
 

 

 কলকাতায় একদিনে চিহ্নিত প্রায় ২০০ বাড়ি, কনটেইনমেন্ট জোন বৃদ্ধির কারণ বললেন মুখ্যসচিব

 করোনা আক্রান্ত বেলুড়ের এক মহারাজ, মঠ খোলার দিন আপাতত অনিশ্চিত

করোনায় সুরক্ষাবিধি নিয়ে বিক্ষোভের জের, বদলি ১৩ পুলিশকর্মীর

করোনা আক্রান্ত নিজাম প্যালেসের এক সিবিআই আধিকারিক, স্যানিটাইজ করা হল পুরো অফিস

করোনা আবহে সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের প্রাক্তন স্ত্রী-শাশুড়ির দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসি