করোনার জেরে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রাজ্যের স্কুলগুলি। ঠিক ছিল ৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ থাকবে রাজ্যের স্কুলগুলি। তবে জুলাই মাসেও খুলছে না স্কুল। নবান্নে এমনটাই জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে নির্ধারিত সূচি মেনে পরীক্ষা হবে। পাশাপাশি, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বেসরকারি স্কুলগুলি যাতে ফি না বাড়ায় সেই আবেদনও করেন মমতা।

আরও পড়ুন, ২ থেকে ৩ ঘন্টার মধ্য়েই ঝাপিয়ে নামবে বৃষ্টি কলকাতা সহ রাজ্য়ে, ওদিকে দোরগোড়ায় বর্ষাও
 

 বুধবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, '৩০ জুন পর্যন্ত স্কুল ছুটি। জুলাইয়ে স্কুল খুলবে না। তবে পরীক্ষা হবে। বেসরকারি স্কুলের কাছে আবেদন, ফি বাড়াবেন না। মানুষের হাতে এখন টাকা নেই।' প্রসঙ্গত, করোনার জেরে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রাজ্যের স্কুলগুলি। মাঝে আমফানের তাণ্ডবের জেরে স্কুল খোলার নির্দিষ্ট দিন আরও পিছিয়ে যায়। ঠিক ছিল, রাজ্যের স্কুলগুলি ৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় একথা ঘোষণা করেছিলেন। করোনা সংক্রমণ, ঘূর্ণিঝড় আমফানের পর  পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফিরে আসা বাড়ায় ছুটি বাড়ানো হল বলে তিনি জানিয়েছিলেন। উল্লেখ্য়, আগে করোনা সতর্কতায় ১০ জুন পর্যন্ত স্কুল-কলেজে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন, শনিবার খুলছে দক্ষিণেশ্বর মন্দির, থার্মাল চেকিং-এর পর মিলবে প্রবেশের অনুমতি

অপরদিকে, রাজ্য সরকার আগেই ঘোষণা করেছে উচ্চমাধ্যমিকের স্থগিত হওয়া পরীক্ষা হবে ২৯ জুন এবং ২ ও ৬ জুলাই। ঘোষিত ওই তিন দিনেই পরীক্ষা হবে। তবে দক্ষিণবঙ্গের আটটি জেলায় ১০৫৮ টি পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে ৪৬২টি উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেই কেন্দ্রগুলি বাতিল করে অন্য স্কুলে পরীক্ষা নেওয়া হবে। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর কথা অনুযায়ী, স্কুল না খুললেও পূর্ব নির্ধারিত দিনেই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা হবে।
 

 

করোনা আবহে সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের প্রাক্তন স্ত্রী-শাশুড়ির দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

 পিটিএসে নতুন করে আক্রান্ত আরও ৮, করোনা মুক্ত হয়ে কাজে ফিরলেন ১০০ পুলিশ কর্মী

বাংলাদেশ ফেরৎ ২ যাত্রী করোনা পজিটিভ, কোয়ারান্টিনের পর আক্রান্ত হওয়ায় চিন্তায় স্বাস্থ্য দফতর

 কলকাতা মেডিক্যালের ছাদের কার্নিশে বসে করোনা রোগী, সামলাতে গিয়ে নাজেহাল কর্তৃপক্ষ

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট