কোভিড-১৯ চিকিৎসায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনকে প্রায় বাতিলই করে দিল রাজ্য সরকার। নয়া নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস বিনাশে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের তেমন কোনও ভূমিকা নেই।  তাই পরিবর্তে রেমি়ডেসিভির ব্যবহারের নির্দেশ দিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।  ইতিমধ্যেই রাজ্যের সকল সরকারি ও বেসরকারি কোভিড হাসপাতাল গুলিতে  এই নির্দেশিকা পৌঁছে গিয়েছে। 

আরও পড়ুন, রবিবার কলকাতায় হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা, মঙ্গলবার থেকে রাজ্যে প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস


করোনা চিকিৎসায় ওষুধের ব্যবহার নিয়ে জারি ওই নির্দেশিকা নিয়ে স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, করোনাভাইরাস বিনাশে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের তেমন কোনও ভূমিকা নেই। কয়েকটি বিশেষ ক্ষেত্রে এই ওষুধ কাজ করে। তবে তারও অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। জরুরি পরিস্থিতিতে রেমিডেসিভির ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে দেখতে হবে রোগীর রক্তাল্পতা রয়েছে কি না, কিডনি ও যকৃত যথাযথভাবে কাজ করছে কি না। যে সমস্ত রোগীদের মাঝারি উপসর্গ রয়েছে কিন্তু তাদের অক্সিজেনের চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে তাদের ক্ষেত্রে মিথাইলপ্রেডনিসোলোন ও ডেক্সামিথাসোন ভর্তির ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবহার করতে হবে। 

আরও পড়ুন, টানা ৩ দিনের জন্য বন্ধ থাকবে নবান্ন, কী কারণে জানুন বিস্তারিত

অপরদিকে, নির্দেশিকায় আরও জানানো হয়েছে, মাঝারি উপসর্গ ও অক্সিজেনের এমন রোগীদের ক্ষেত্রে স্টেরয়েডের জায়গায় প্লাজমা দেওয়া যেতে পারে । শুধুমাত্র ড্রাগ কন্ট্রোল ও আইসিএমআর অনুমোদিত সংস্থাই প্লাজমা প্রক্রিয়াকরণ করতে পারবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর। 

 

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

  মৃত্যুর পর ২ দিন বাড়ির ফ্রিজে করোনা দেহ, অভিযোগ 'সাহায্য মেলেনি স্বাস্থ্য দফতর-পুরসভার'

  অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকলের পরও কোভিড জয়ী ৫৪-র দুধ ব্যবসায়ী, শহরকে দিলেন এক সমুদ্র আত্মবিশ্বাস

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের