অর্থকষ্টে ভুগছেন দেশের সেরা বিশ্ববিদ্য়ালয়, যাদবপুরের পিএইডি স্তরের গবেষকরা। মাসের পর মাস মেলেনি ফেলোশিপের টাকা। মানসিক অবসাদে চলে গিয়েছেন অনেকেই। তাই বাধ্য হয়ে মুদিখানার দ্রব্য়াদি সরবারহ করছেন ৪০০ জন গবেষক।

 

 

আরও দেখুন, পুজোর আগেও আগুনে আকাশ, প্রবল বর্ষায় কাবু হতে পারে কারা কারা, দেখুন ছবি

যাদবপুরে রুসা অর্থাৎ রাষ্ট্রীয় উচ্চতর শিক্ষা অভিযান প্রকল্পে যে কয়েকজন পিএইচডি গবেষক, পোস্ট ডক্টরাল গবেষক এবং রিসার্চ এসোসিয়েট আছেন, গত ৫ মাসে তাঁরা কেউ ফেলোশিপের টাকা পাননি। এদিকে বিনা পারিশ্রমিকেই তাঁরা গবেষণার কাজ করে যাচ্ছেন। যার ফলে টাকার অভাবে কয়েক জন গবেষক নিরুপায় হয়ে নিত্য় প্রয়োজনীয় জিনিসের হোম ডেলিভারি করছেন। চলে গিয়ে মানসিকে অবসাদেও। একাধিকবার কর্তৃপক্ষের কাছে দরবার করা সত্বেও কোনও সুমাধান মেলেনি।

 

 

আরও দেখুন, আজই বেরিয়ে পড়ুন, মন ভাল করে ফিরুন, রইল কলকাতার সেরা রেস্তোরার হদিশ

সহ-উপাচার্য চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য অবশ্য এর জন্য করোনাকেই দায়ী করেছেন। তিনি জানিয়েছেন রুসা থেকে গবেষণা সহ বিভিন্ন খাতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্য়ালয়ে ১০০ কোটি পাওয়ার কথা থাকলেও মিলেছে ৪০ কোটি টাকা। তার উপরে সেই টাকা আসার কিছু দিন পরেই বিশ্ববিদ্য়ালয়ের ৭০ শতাংশ শূন্য শিক্ষকপদ পূরণ করার শর্ত চাপানো হয়। না হলে বাকি টাকা পাওয়া যাবে না। এরপর শিক্ষক নিয়োগের সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়। প্রায় ১০০ এর উপরে নিয়োগের জন্য চূড়ান্ত ইন্টারভিউ ঠিক হয়ে গিয়েও বাঁধ সাধে করোনা।  ফলে নিয়োগ প্রক্রিয়াটাও বন্ধ হয়ে যায়। রুসা থেকেও আর টাকা পাওয়া যায়নি।
 

       

 

চিকিৎসা সংক্রান্ত খরচ গোপন, কলকাতার ৬ হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা স্বাস্থ্য কমিশনের

কোভিড আক্রান্তের ফ্ল্য়াটে ঝুলল তালা, বিপাকে পরিবার, রইল করোনা ক্রাইমের সাতকাহন

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা