রাজ্য সরকারের তরফে সপ্তাহে দুদিন করে লকডাউন করার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সে ব্যাপারে নাগরিকদের অবগত করানোর জন্য কলকাতা পুলিশের তরফে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে। বুধবার সকালে বেলেঘাটা থানার পুলিশ জনবহুল এলাকা থেকে শুরু করে বাজার এবং কনটেনমেন্ট জোনে প্রচার চালানো হয়। মাইকিং করে লকডাউনের বিষয়ে স্থানীয় নাগরিকদের সচেতন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন, দিদি বলছেন কিছুই দেয়নি,তথ্য় দিয়ে 'সত্য দেখালেন' বাবুল

প্রসঙ্গত রাজ্যে ক্রমে বেড়ে চলেছে সংক্রমণ। ইতিমধ্যে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজারের গণ্ডিও ছাড়িয়েছে। তাই আনলক ভারতে এবার ফের লকডাউনের পথেই ফিরেছে রাজ্য সরকার। নিয়ে গত সোমবারই নবান্নে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরেই স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দেন এবার থেকে প্রতি সপ্তাহে ২ দিন করে লকডাউন থাকবে রাজ্যে। মঙ্গলবার সেই সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করে রাজ্য সরকার। তাই সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী, চলতি সপ্তাহে বৃহস্পতিবার এবং শনিবার রাজ্য়ে লকডাউন জারি থাকবে। এনিয়েই নীয় নাগরিকদের সচেতন করতে বেলাঘাটা সহ কলকাতা পুলিশের তরফে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন, 'সেফ হোম' পরিষেবা এবার রাজ্য়ে, বিনামূল্য়ের খাবার ও চিকিৎসা পাবে কোভিড আক্রান্তরা

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করার আগেই অতি সংক্রমিত বা বিধাননগরের  কনটেনমেন্ট জোনগুলির কিছু এলাকা সহ উত্তর কলকাতার একাধিক বাজারও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। খুললেও তা হবে হবে শর্ত সাপেক্ষে। জোড়-বিজোড় সংখ্য়ায় দোকানের ঝাপ খোলা যাবে। সম্প্রতি যাদবপুর এলাকার বাজারও বন্ধ করে জীবাণুমুক্ত করণ চলেছে। তবুও কিছু এলাকায় মানুষের হুঁশ নেই বলে অভিযোগ। তাই রাজ্যে পুরোপুরি সংক্রমণের মাত্রা কমাতে নতুন করে লকডাউনের এই উদ্য়োগ।
 

 

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

  মৃত্যুর পর ২ দিন বাড়ির ফ্রিজে করোনা দেহ, অভিযোগ 'সাহায্য মেলেনি স্বাস্থ্য দফতর-পুরসভার'

  অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকলের পরও কোভিড জয়ী ৫৪-র দুধ ব্যবসায়ী, শহরকে দিলেন এক সমুদ্র আত্মবিশ্বাস

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের