ফের আত্মহত্যা ঘটনা দমদমের দেবী নিবাস রোডে। সোমবার দমদম দেবী নিবাস রোডের বহুতল থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন এক মহিলা। জানা গিয়েছে, বছর ৬২-র ওই মহিলার নাম আলপনা দাস। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে গিয়েছে দমদম থানার পুলিশ। 

আরও পড়ুন, করোনায় আক্রান্তের মৃত্যুর পরদিনেও দেহ বাড়িতে, পরিবারে আক্রান্ত আরও ৬, প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ

সূত্রের খবর সোমবার সাতসকালে দমদম দেবী নিবাস রোডের দেবী কমপ্লেক্সের ছয়তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা এক মহিলার। জানা গিয়েছে আলপনা দাস নামের ওই মহিলা মেয়ের বাড়িতে ঘুরতে এসেছিলেন। জানা গিয়েছে, আলপনা দাসের জামাই ফিশারি ডিপার্টমেন্টের আধিকারিক। এদিকে সোমবার এই মর্মান্তিক ঘটনায় কঠিন পরিস্থিতির মধ্য়ে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে দমদম থানার পুলিশ। কী কারণে আত্মহত্যা করল সমস্ত ঘটনা খতিয়ে দেখছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন, করোনা আতঙ্কে এগিয়ে এল না কেউ, ৬ ঘণ্টা ধরে পড়ে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু বৃদ্ধার


অপরদিকে, ইতিমধ্যেই জুন থেকে জুলাই মাসের মধ্যে অসংখ্য় মানুষ আত্মঘাতি হয়েছেন। কেউ করোনায় সন্তান হারিয়ে, কেউ বা লকডাউনে রোজগার হারিয়ে, এছাড়াও রেজাল্টের ভয়ে সহ নানা একাধিক কারনে আত্মহত্য়া করেছে। সেই তালিকায় টালা থেকে টালিগঞ্জ সব জায়গায়ই আছে। উল্লেখ্য, ব্রেন টিউমার ধরা পড়ায় মানসিক অবসাদে এর আগে দমদমের মল রোডে আইনজীবী নিজেকে গুলি করে আত্মঘাতি হয়েছেন। অপরদিকে,  আত্মঘাতী হওয়া থেকে দুজনকে বাঁচিয়েওছে কলকাতা পুলিশ। তার মধ্যে একটি ক্ষেত্রে ফেসবুক পোস্ট দেখে আত্মহত্যা রুখেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার রিজেন্ট পার্ক এলাকায়। তবে এই মুহূর্তে এই কঠিন পরিস্থিতিতে হতাশায় ভোগে , তাহলে দ্রুত যেন ১০০ ডায়াল করা হয়। কলকাতা পুলিশ তাঁর পাশে আছে, জানিয়েছেন সিপি।
 

 

 

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে

  মৃত্যুর পর ২ দিন বাড়ির ফ্রিজে করোনা দেহ, অভিযোগ 'সাহায্য মেলেনি স্বাস্থ্য দফতর-পুরসভার'

  অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকলের পরও কোভিড জয়ী ৫৪-র দুধ ব্যবসায়ী, শহরকে দিলেন এক সমুদ্র আত্মবিশ্বাস

কোভিড রোগী ফেরালেই লাইসেন্স বাতিল, হাসপাতালগুলিকে হুঁশিয়ারি রাজ্য়ের