Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ICU না পেয়ে করোনা রোগীর মৃত্যু, ৩ হাসপাতালকে দোষী সাব্যস্ত করল কমিশন

  • করোনার মুমূর্ষ রোগীকে ফেরাল শহরের ৩ বেসরকারি হাসপাতাল  
  •  শ্বাস নিতে না পেরে প্রাণ হারান বছর ৭৮-র অলোকনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়  
  •   ৩ হাসপাতালকে দোষী সাব্যস্ত করেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশন 
  • অপরদিকে, করোনা রোগীকে ছাড়িয়ে এনে মহা ফাঁপড়ে স্বাস্থ্য কমিশন 
     
Coronavirus chronic obstructive pulmonary disease RTB
Author
Kolkata, First Published Sep 10, 2020, 12:55 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

করোনার মুমূর্ষ রোগীকে ফিরিয়ে দিল শহরের ৩ বেসরকারি হাসপাতাল। অবশেষে শ্বাস নিতে না পেরে প্রাণ হারালেন বছর ৭৮-র অলোকনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনায় তিন হাসপাতালকে জরিমানার দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য কমিশন। 

 

Coronavirus chronic obstructive pulmonary disease RTB

 

আরও পড়ুন, বেলুড় মঠে একসঙ্গে করোনায় আক্রান্ত ৬৯, আশঙ্কায় আনা হচ্ছে ইলেকট্রন

 ৩ জুলাই রাতে বৃদ্ধ বাবাকে নিয়ে কলকাতার তিনটি বেসরকারি হাসপাতালে যান মেয়ে এনাক্ষী। শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ কমছিল। প্রয়োজন ছিল ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটের । কিন্তু রোগীর পরিবার একাধিকবার আবেদন করলেও আইসিইউ-তে দেওয়া হয়নি বৃদ্ধকে। ফলে একাধিক হাসপাতাল ঘুরে মৃত্যু হয় বৃদ্ধের। বৃদ্ধের মেয়ের অভিযোগ, শত অনুরোধেও কেউ আইসিইউ বেডের ব্যবস্থা করেননি।  অবশেষে তিন হাসপাতাল ঘুরে ভোর চারটের সময় বৃদ্ধ অলোকনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভরতি করা হয় একবালপুরের এক নার্সিংহোমে। ৪ দিন পর ৭ জুলাই সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। বৃদ্ধের মেয়ে এনাক্ষি জানিয়েছেন, 'একটা আইসিউ বেডে রাখা গেলে বাবাকে এভাবে চলে যেতে হতো না।' এরপরেই অভিযোগ যায় স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশনে। শুনানির পর, গোটা ঘটনায় তিন হাসপাতালকে দোষী সাব্যস্ত করেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশন। তিন হাসপাতালের মধ্যে আনন্দপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালকে ১ লক্ষ টাকা এবং তপসিয়া ও গড়চার দুই বেসরকারি হাসপাতালকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন, শুধু কলকাতাতেই করোনা নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দেড় হাজার ছুঁইছুঁই, রাজ্যে মৃত ৩,৭৩০

 

Coronavirus chronic obstructive pulmonary disease RTB

 

অপরদিকে, উলটপূরাণ মেডিকা সুপার স্পেশ্যালিটির এক কোভিড রোগীকে নিয়ে। প্রথমে অভিযোগ ছিল বকেয়া টাকা না দিলে হাসপাতাল রোগী ছাড়ছে না। সে রোগীকে ছাড়িয়ে এনে ধন্ধে পড়েছে স্বাস্থ্য কমিশন। বকেয়া বিল মেটানোর জন্য এবার কার্যত কমিশনের কাছেই হাত পাতল রোগীর পরিবার। অভিযোগ, চাহিদা বদলে যাওয়ায় অবাক স্বাস্থ্য কমিশনও। স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশনের চেয়ারম্যান প্রাক্তন বিচারপতি অসীমকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রোগীর পরিবারের কাছ থেকে হাসপাতাল ১৯ লক্ষ টাকা পায়। তাঁদের অনুরোধে যদি পাঁচ লক্ষ টাকা হাসপাতাল কমিয়েও দেয়, তাও বাকিটা দিতে অক্ষম রোগীর পরিবার। এবার তারা স্বাস্থ্য কমিশনের কাছেই সাহায্য চাইছে। এদিকে রোগীর বকেয়া বিল মেটানোর মতো কোনও নিয়ম  স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশনের আইনে নেই।

আরও পড়ুন, শুক্র-শনিবার লকডাউন, 'নিট' পরীক্ষায় কী নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট

  

        Coronavirus chronic obstructive pulmonary disease RTB

 

চিকিৎসা সংক্রান্ত খরচ গোপন, কলকাতার ৬ হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা স্বাস্থ্য কমিশনের

কোভিড আক্রান্তের ফ্ল্য়াটে ঝুলল তালা, বিপাকে পরিবার, রইল করোনা ক্রাইমের সাতকাহন

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios